উত্তরপ্রদেশে জঙ্গলরাজ! গুলিবিদ্ধ সাংবাদিকের মৃত্যু, পরিবারকে সমবেদনা মমতার

মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা কষে শেষে হার মানতে বাধ্য হলেন সাংবাদিক বিক্রম যোশী। এই ঘটনা ফের সামনে আনল উত্তরপ্রদেশে জঙ্গলরাজ, গুন্ডারাজের ভয়াবহ ছবি। সোমবার ১৯ জুলাই রাতে মেয়েদের নিয়ে বাইকে করে ফিরছিলেন ওই সাংবাদিক। গাজিয়াবাদে তাঁদের ঘিরে ধরে একদল দুষ্কৃতী। সাংবাদিককে মারতে মারতে একটি গাড়ির কাছে নিয়ে গিয়ে মাথা লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে তারা চম্পট দেয়। সাংবাদিকের মেয়েদের সামনেই তাঁকে গুলি করা হয়। বুধবার ২২ জুলাই ভোরে ওই সাংবাদিক মারা যান। জানা গিয়েছে, ভাইঝির শ্লীলতাহানির অভিযোগে বিজয় নগর থানায় এফআইআর দায়ের করেছিলেন বিক্রম‌। তার জেরেই এই ঘটনা বলে পরিবার ও পুলিশের অনুমান।  এই ঘটনায় জড়িত দশজনের নামের তালিকা তৈরি করে এখনও অবধি ৯ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনায় মর্মাহত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটারে লিখেছেন, নির্ভীক সাংবাদিক বিক্রম যোশীর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। সারা দেশেই একটা ভয়ের বাতাবরণ তৈরি করা হয়েছে। কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে। সংবাদমাধ‌্যমকেও ছাড়া হচ্ছে না। এটা অত্যন্ত বেদনাদায়ক।   উত্তরপ্রদেশে জঙ্গলরাজ চলছে বলে দাবি করে কংগ্রেস বলেছে, এই ঘটনা ফের প্রমাণ করল উত্তরপ্রদেশে আইনশৃঙ্খলা বলে কিছু নেই। উত্তরপ্রদেশের সাংবাদিকরা ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। যোগী সরকার বিক্রমের পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ও তাঁর স্ত্রীকে চাকরি দেওয়ার কথা জানিয়েছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*